ঢাকা, মঙ্গলবার ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সুজানগরে ব্যবসায়ী মাসুদ রানা কে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মারপিট করার অভিযোগ

 নিউজ রুমঃ Bijoy Bangla BD 24. COM

 প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২১, ২:৪৫

৭৯৬ বার পঠিত

এম মনিরুজ্জামান,পাবনা: অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মারপিট করা শেষে জীবন নাশের হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২১ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানান, পাবনার সুজানগর উপজেলার উদয় পুর একতা ইট ভাটার মালিক মাসুদ রানা। তিনি বলেন বৃহস্পতিবার রাতে আমি ভাটার একটি রুমে শুয়ে থাকা কালীন সময়ে হঠাৎ রুমের দরজায় বিকট শব্দ শুনে আমার ঘুম ভেঙ্গে যায়, কিছু বুঝে ওঠার আগেই মুহূর্তেই টিনের দরজা খুলে দুইজন লোক মুখ বাধা অবস্থায় আমাকে টেনে হেঁচড়ে বাহিরে নিয়ে যায়, বাহিরে দাঁড়িয়ে থাকা এক যুবক দৌড়ে এসে আমার বুকের উপর লাথি মারে, আমি মাটিতে পড়ে গেলে, আমাকে টেনে তুলে আমার দিকে দুই জন দুই টা পিস্তল ঠেকিয়ে চড় থাপ্পড় কিল ঘুষি মারতে থাকে এবং আর কোন দিন যেন এই ভাটায় না দেখি বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এরপর ও যদি কোন দিন ভাটায় দেখি তাহলে জীবন শেষ করে দেবো বলে শাসিয়ে হোন্ডা নিয়ে চলে যায়। আমি তাৎক্ষণিক আমার ব্যাবসায়ী পাটনার মওলা ভাই সহ অন্যান্য সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করি। মাসুদ রানা আরো অভিযোগ করে বলেন, শাজাহান মিয়ার ছেলে তুষার এর আগে আমাকে হুমকি দিয়েছিল। আবুল খায়ের মওলা বলেন, মাসুদ রানার মোবাইলে ঘটনা জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে ভাটায় আসি এবং বিস্তারিত ঘটনা শুনে,ভাটার নাইট গার্ড সহ আগুন মিস্ত্রীদের ডাকি, নাইট গার্ড তখন ভাটায় ছিল না, নাইট গার্ড রাতে খাওয়ার জন্য বাড়িতে ছিল, আগুন মিস্ত্রী মুন্জু, রবিউল, বাপ্পী সরকার, ফয়সাল ইসলাম জানান, তিন চার জন লোক মুখ বাধা অবস্থায় ভাটার উপর গিয়ে আমাদের কাছে মাসুদ রানা কোথায় আছে জানতে চায়, আমরা বলি মাসুদ রানা ভাই বাড়িতে চলে গেছে,এর পর কি হয়েছে আমরা জানি না। আবুল খায়ের মওলা জানান, আনুমানিক ১০ দিন আগে আমাদের ব্যাবসায়ী পাটনার শাজাহান মিয়ার সাথে ইটের গাড়ীর সিরিয়ার নিয়ে মাসুদ রানার কথা কাটাকাটি হয়,এর আগে অন্য আরেক ব্যাবসায়ী পাটনার সোনাই মন্ডলের সাথে হাজিরা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছিল।এর বাইরে আমি কিছু জানি না, তবে এই ঘটনার সময় আমার বাড়িতে একাধিকবার ঢিল ছুড়ে মারে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

এ ঘটনায় শাজাহান মিয়া বলেন,দশ বছর ধরে ভাটা চালাচ্ছি এ ধরণের ঘটনা কখনো হয়নি, তবে মাসুদ রানার ব্যাক্তিগত ব্যাপারে এই ধরণের ঘটনা ঘটতে পারে। অন্য পাটনার সোনাই মন্ডলের সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করে না পেয়ে তার বাড়িতে গিয়ে পাওয়া যায়নি। এলাকার একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জানান, শাজাহান মিয়ার ছেলে তুষার এই ঘটনা ঘটাতে পারে, তুষারের বিরুদ্ধে সুজানগর থানায় মাদকের মামলা রয়েছে ও মালফিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে ৬৪ বাহিনী নামে একটি তালিকা রয়েছে,যে ৬৪ জন মিলে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল,এর মধ্যে তুষার অন্যতম প্রধান হিসেবে পরিচিতি, এদের কাছে একাধিক অবৈধ অস্ত্র রয়েছে বলে সবাই জানে, কিন্তু ভয়ে কেউ মুখ খুলে না। এই ঘটনায় সুজানগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুদ্দোজা বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ
অপরাধ বিভাগের সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত


Copyright ©  BijoyBanglaBD24.com                                 Developed by VIP TECHNOLOGY